কুমিল্লার কাছে বিশাল ব্যবধানে হারল চিটাগং

0

স্পোর্টস ডেস্কঃ মুশফিকদের দল চিটাগং ভাইকিংসকে হেসেখেলে হারালো তামিমের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। চিটাগং ভাইকিংসকে ২ওভার ২বল হাতে রেখে ৭ উইকেটে হারিয়েছে কুমিল্লা। বৃষ্টিবিঘ্নিত ম্যাচে প্রথমে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১৬ রান সংগ্রহ করে ভাইকিংস। জবাবে ১৪ বল বাকি থাকতেই জয়ের বন্দরে পৌছে যায় কুমিল্লা। দলের হয়ে সর্বোচ্চ ৫৪ রান করে অপরাজিত তামিম ইকবাল।

আজ মঙ্গলবার (২৯ জানুয়ারী) বৃষ্টি বিঘ্নিত ম্যাচ দেরি করে শুরু হবার পর টস জিতে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন চিটাগং ভাইকিংসের অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের পেসার আবু হায়দার রনির প্রথম ওভার শেষ হতে না হতেই ফের শুরু হয় বৃষ্টি। এতে বেশ কিছুক্ষণ খেলা বন্ধ রাখতে হয় ম্যাচ অফিসিয়ালদের। বৃষ্টি কমলে নির্ধারিত ২০ ওভারের বদলে ১৯ ওভার করে ম্যাচ খেলার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এরপরই ভেজা মাঠে বিপদে পড়ে ভাইকিংসরা। সাদমান ইসলাম ও ইয়াসির আলী দুজনই ফেরেন খালি হাতে। শাহজাদ একা লড়াই চালিয়ে গেলেও থিতু হতে পারেননি মুশফিকুর রহিম, নজিবুল্লাহ জাদরান, ক্যামেরুন ডেলপোর্ট, ও সিকান্দার রাজা।

১৩ ওভারে ৩৩ বলে ৩৫ রান করে ফিরে যান আফগান ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শাহজাদ। এরপর ২২ রানের ছোট জুটি গড়েন মোসাদ্দেক হোসেন ও নাঈম ইসলাম। ১৩ বলে ৪ রান করে নাঈম ফিরে গেলেও আবু জায়েদকে নিয়ে শেষ পর্যন্ত ক্রিজে ছিলেন মোসাদ্দেক। ২৫ বলে ৪৩ রান করেন মোসাদ্দেক। ১৯ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১১৯ রান সংগ্রহ করে বন্দর নগরীর দলটি।

ভিক্টোরিয়ানসদের হয়ে দুটি করে উইকেট নেন সাইফুদ্দিন, শহিদ আফ্রিদি ও ওয়াহাব রিয়াজ। একটি উইকেট তুলে নেন মেহেদী হাসান।

১১৭ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ২৬ রানেই খালেদ আহমেদের বলে ফিরে যান ওপেনার এনামুল হক বিজয়। ১৩ বলে ৮ রান করে ফেরেন তিনি। ওপেনার তামিম ইকবালের সঙ্গে মিলে দলকে অনেকটাই জয়ের কাছে নিয়ে যান শামসুর রহমান। তবে আবু জায়েদ রাহির বলে দলীয় ৯১ রানে ফেরেন তিনি। আউট হয়ে ফেরার আগে ২২ বলে ৩৬ রান করেন তিনি।

নিজের স্বাভাবিক খেলায় বিপিএলের দ্বিতীয় হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন তামিম। কিন্তু অধিনায়ক ইমরুল কায়েস বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি মাত্র ৮ বলে ৮ রান করে রাহির বলেই ফেরেন তিনি। তামিমের সঙ্গে মিলে শেষ পর্যন্ত কুমিল্লাকে জিতিয়ে ফেরেন থিসারা পেরেরা। ওপেনার তামিম অপরাজিত থাকেন ৫৪ রানে। আর পেরেরা ৯ রানে।

এদিকে চিটাগং ভাইকিংসের বিপক্ষে অপরাজিত ৫৪ রানের ইনিংস খেলে প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে স্বীকৃত টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে পাঁচ হাজার রানের মাইলফলকে প্রবেশ করেছেন তামিম। এখনো পর্যন্ত ১৮৭ ম্যাচের ১৮৬ ইনিংসে ব্যাট করে ২৯.৫৮ গড়ে তামিমের সংগ্রহ ৫০২৯ রান। সেঞ্চুরি রয়েছে ২টি, সর্বোচ্চ রানের ইনিংস ১৩০।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.