খালেদা জিয়ার কারাদণ্ড ১২ বছর

0

সিটি নিউজ ডেস্ক :   জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াসহ চার আসামির ৭ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। এছাড়া প্রত্যেক আসামিকে ১০ লাখ টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ৬ মাসের জেল দেয়া হয়েছে। সোমবার পুরান ঢাকার কেন্দ্রীয় কারাগারে স্থাপিত ঢাকার বিশেষ জজ আদালত-৫ এর বিচারক আখতারুজ্জামান এ রায় দেন।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্টের নামে অবৈধভাবে ৩ কোটি ১৫ লাখ ৪৩ হাজার টাকা লেনদেনের অভিযোগে খালেদা জিয়াসহ চারজনের বিরুদ্ধে ২০১০ সালের ৮ আগস্ট তেজগাঁও থানায় মামলা করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

এর আগে জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার ৫ বছর কারাদণ্ড দেন আদালত। একই মামলায় খালেদার ছেলে তারেক রহমানের ১০ বছর কারাদণ্ড হয়। ওই মামলায় গত ৮ এপ্রিল থেকে কারাবন্দী খালেদা জিয়া।

জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলা ও জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট মামলায় খালেদা জিয়ার মোট ১২ বছরের কারাদণ্ড দেয়া হলো। এ দুটি মামলায় খালেদা জিয়াকে আলাদা জেল খাটতে হবে।

সোমবার দুপুরে জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট মামলায় রায়ের পর প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে দুদকের আইনজীবী মোশাররফ হোসেন কাজল জানান, দুই মামলায় খালেদা জিয়া ১২ বছর দণ্ডিত হলেন। দুটি মামলার রায় আলাদাভাবে কার্যকর হবে। যেহেতু তিনি একটি মামলায় জেল খাটছেন এটি শেষ হলে অন্যটি কার্যকর হবে।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.