চীনের যুদ্ধের প্রস্তুতি 

0

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ চীনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং সশস্ত্রবাহিনীকে সর্বাত্মক যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে বলেছেন। বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে শুক্রবার বৈঠকের সময় তিনি একথা বলেন।

সেনাবাহিনীকে তাদের জরুরী পরিস্থিতি আঁচ করার ক্ষমতাকে আরও শক্তিশালী করে যুদ্ধের প্রস্তুতি নিতে তাদের ক্ষমতা অনুযায়ী সবকিছু করতে বলেন জিনপিং। দক্ষিণ চীন সাগরের অধিকার নিয়ে বিভিন্ন দেশের সঙ্গে বিবাদে জড়িয়েছে চীন। আবার বাণিজ্য থেকে শুরু করে তাইওয়ানের অবস্থা পর্যন্ত বিভিন্ন বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে তাদের সম্পর্কে উত্তেজনা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

চীনের সরকারি বার্তা সংস্থা সিনহুয়া জানায়, সেনাবাহিনীর ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে জিনপিং বলেছেন, চীন বিভিন্ন ক্ষেত্রে ক্রমেই আরও বেশি ঝুঁকি ও বাধার সম্মুখীন হচ্ছে। সশস্ত্র বাহিনীকে অবশ্যই এর নিরাপত্তা ও উন্নয়নের নিশ্চিত করতে কাজ করতে হবে।প্রেসিডেন্ট জিনপিং সেন্ট্রাল মিলিটারি কমিশনেরও চেয়ারম্যান।

তিনি বলেন, নতুন যুগের জন্য অবশ্যই কৌশল নির্ধারণ করতে হবে এবং যুদ্ধের প্রস্তুতি নেয়া ও যুদ্ধ করার দায়িত্ব নিতে হবে। বিশ্বজুড়ে এমন সব গুরুত্বপূর্ণ পরিবর্তন ঘটছে যা গত এক শতাব্দীতে কখনো দেখা যায়নি। এবং চীন উন্নয়নের জন্য কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ একটি সময় পার করছে,’ বলেন তিনি।

জিনপিং বলেন, জরুরী অবস্থায় দ্রুত সক্রিয় হওয়ার জন্য প্রস্তুত থাকতে হবে সশস্ত্রবাহিনীকে। একই সঙ্গে সমন্বিতভাবে অভিযান পরিচালনা ও নতুন ধরনের যুদ্ধের শক্তি উন্নত করতে হবে তাদের। তাইওয়ানকে চীনের সঙ্গে ‘পুনরায় সংযুক্ত’ করতে চীন প্রয়োজনে সামরিক শক্তিও ব্যবহার করতে পারে, বুধবার এমন ঘোষণা দেয়ার পর সেনাবাহিনীকে প্রস্তুত হতে বললেন জিনপিং।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্প্রতি এশিয়া রিঅ্যাস্যুরেন্স ইনিশিয়েটিভ অ্যাক্টকে নামে একই আইন প্রণয়ন করেছেন, যাতে স্বশাসিত তাইওয়ানের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দেয়া হয়েছে। এর ঠিক পরপরই চীনের প্রেসিডেন্ট ওই ঘোষণা দেন।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.