দাওয়াতে খায়র কর্মসূচিকে প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছে দিতে হবে

0

সিটি নিউজ,চট্টগ্রাম :  ইসলামের তথা সঠিক পথ ও মতের ভিত্তিতে ত্বাকওয়া ভিত্তিক সমাজ বিনির্মাণে দাওয়াতে খায়র কর্মসুচিকে দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে পৌঁছিয়ে দিতে হবে।

গত সোমবার ৮ অক্টোবর বিকালে নগরীর ষোলশহরস্থ জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া ময়দানে অনুষ্ঠিত আজুমানে রাহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্টের একমাত্র সহযোগী সংগঠন গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় পরিষদ আয়োজিত দাওয়াতে খায়র কনভেনশনে সভাপতির বক্তব্যে আওলাদে রাসূল, রাহনুমায়ে শরিয়ত ও তরিকত, মুরশিদে বরহক আল্লাম সৈয়্যদ মুহাম্মদ সাবির শাহ (ম.জি.আ.) বলেন, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়া আল্লামা সৈয়দ আহমদ শাহ সিরিকোটির (র.) এর নামে হয়েছে।

এটির সবচেয়ে বড় কিরামত হচ্ছে জামেয়া সুন্নি মুসলমানদের ঐক্যের প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়েছে। আল্লামা সৈয়দ আহমদ সিরিকোটি প্রতিষ্ঠিত এ জামেয়ার মাধ্যমে সুন্নিয়তের জাগরণ সৃষ্টি হয়েছে। জামেয়ার আদলে ঢাকাসহ সারা বাংলাদেশে একশতাধিক মাদ্রাসা, আলমগীর খানকাহ্সহ বাংলাদেশে হাজারো খানকাহ্ ও মসজিদ প্রতিষ্ঠা হয়েছে। এসব প্রতিষ্ঠান থেকে দ্বীনি আলেম বের হচ্ছে।

হুজুর কেবলা আল্লামা তৈয়্যব শাহ্ (র.) গাউসিয়া কমিটি প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ত্বরিকত ও ইসলামের প্রচারে যে জাগরণ সৃষ্টি করেছে তাকে যথার্থ রূপ দেওয়ার জন্য হজরাতে ক্বেরামের পক্ষ থেকে গাউসিয়া ত্বরবিয়াতুন নেসাব এর ভিত্তিতে দাওয়াতে খায়র কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়েছে। এই দাওয়াতে খায়র কর্মসূচি মহান আল্লাহ রাবক্ষুল আলামীনের নির্দেশিত পন্থায় কার্যকর করতে হবে। যা নবী (দ.) সাহাবায়ে ক্বেরাম, আউলিয়া ক্বেরাম ও বুজুর্গানে দ্বীনরা করে আসছেন।

তিনি গাউসিয়া কমিটির প্রতিটি জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন, ওয়ার্ড ও ইউনিট সমূহে দাওয়াতে খায়র কর্মসূচি বাস্তবায়নের আহবান জানিয়ে বলেন, গাউসিয়া কমিটির লক্ষ এবং উদ্দেশ্য হচ্ছে মানুষকে ভালো তথা সঠিক পথে আহবান করা এবং অন্যায়, অত্যাচার, অবিচার ও জুলুম থেকে মানুষকে মুক্ত করা। তিনি বলেন দাওয়াতে খায়র বাস্তবায়নের মাধ্যমে সিলসিলার হজরাতে ক্বেরামের ফয়ুজাত ও বরকত লাভ সম্ভব হবে। ইহ এবং পরকালে নাজাত নিশ্চিত হবে। কনভেনশনে প্রধান অতিথি বক্তব্যে আওলাদে রাসূল ছাহেবজাদা আল্লামা সৈয়্যদ মুহাম্মদ আহমদ শাহ (ম.জি.আ) ইসলামের প্রাথমিক যুগের সর্বশ্রেষ্ট ইসলামি আইনবিদ, মাজহাবের ইমাম ইমাম আহমদ ইবনে হাম্বলের (রা.) এর একটি আমলের বর্ণনা দিয়ে বলেন, আহমদ ইবনে হাম্বল ইসলামী দর্শন ও জ্ঞানের প্রচার-প্রসারে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন রাজ্যে সফর করেছেন। ইলমে কুরআন, ইলমে হাদিস ও ইলমে ফিকহ্’র শিক্ষা দিয়েছেন।

তাঁর জীবনের সফলতার পেছনে প্রধান ভূমিকা রেখেছিল রাসূলে পাক (দ.) এর প্রতি ভালোবাসা, আর অন্যটি ছিল ‘সোবহানাল্লাহি ওয়াল হামদুলিল্লাহি ওয়ালাইলাহা ইল্লাল্লাহু আল্লাহু আকবর’ তাসবিহটি। তিনি বলেন, দাওয়াতে খায়র হজরাতে ক্বেরামের প্রদত্ত একটি নেয়ামত। এর মাধ্যমে তরিকতের ভাইয়েরা নিজেদেরকে প্রকৃত তাক্ওয়াবান মুসলমান হিসেবে গড়ে তুলতে পারবেন। অপরকে ইসলামের সঠিক পথে আহবান করতে পারবেন। তিনি দাওয়াতে খায়র এর কর্মসূচির সফলতা কামনা করেন।

গাউসিয়া কমিটি বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আব্দুল হামিদের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত কনভেনশনে বক্তব্য রাখেন আনজুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাষ্ট এর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট আলহাজ্ব মুহাম্মদ মহসিন, শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন সেক্রেটারি জেনারেল আলহাজ্ব মুহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, স্বাগত বক্তব্য রাখেন গাউসিয়া কমিটির চেয়ারম্যান আলহাজ্ব পেয়ার মুহাম্মদ কমিশনার ও বক্তব্য রাখেন শায়খুল হাদিস আল্লামা মুফতি ওবাইদুল হক নঈমী।

অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন আনজুমান-এ-রহমানিয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া ট্রাস্ট এডিশনাল সেক্রেটারি জেনারেল আলহাজ্ব মুহাম্মদ সামশুদ্দিন, জয়েন্ট সেক্রেটারি জেনারেল আলহাজ্ব সিরাজুল হক, এসিস্ট্যান্ট সেক্রেটারি জেনারেল আলহাজ্ব গিয়াস উদ্দিন সাকের, প্রেস এন্ড পাবলিকেশন্স সেক্রেটারি অধ্যাপক কাজী সামশুর রহমান, আঞ্জুমান সদস্য আলহাজ্ব তৈয়বুর রহমান, আলহাজ্ব নরুল আমিন, আলহাজ্ব নূর মোহাম্মদ, জামেয়া আহমদিয়া সুন্নিয়া আলিয়ার চেয়ারম্যান প্রফেসর দিদারুল ইসলাম, গাউসিয়া কমিটির কেন্দ্রীয সিনিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আনায়ারুল হক, মহাসচিব আলহাজ্ব শাহজাদ ইবনে দিদার, যুগ্মমহাসিচিব অ্যাডভোকেট মোছাহেব উদ্দিন বখতেযার, যুগ্মমহাসচিব আলহাজ্ব মাহবুবুল হক খান, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব মাহবুব এলাহি শিকদার, চট্টগ্রাম মহানগর সভাপতি আলহাজ্ব আবুল মনসুর, সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মাহবুবুল আলম, দক্ষিণ জেলার সভাপতি আলহাজ কমরুদ্দিন সবুর, সাধারণ সম্পাদক হাবিবুল্লাহ মাস্টার, উত্তর জেলার সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট জাহাঙ্গির আলম চৌধুরী, মহানগর সাংগঠনিক সম্পাদক সাদেক হোসেন পাপ্পু, কনভেনশনে দাওয়াতে খায়র এর কর্মসুচির আলোকে বিষয় ভিত্তিক বক্তব্য রাখেন অধ্যক্ষ আল্লামা মুফতি সৈয়দ অসিয়র রহমান, আনজুুমান রিসার্চ সেন্টারের মহাপরিচালন আল্লামা এম এ মান্নান. অধ্যাপক মাওলানা জালাল উদ্দিন আল আজহারী, দাওয়াতে খায়র এর প্রধান মুয়াল্লিম মাওলানা মুজাম্মেল হক।. মাওলানা ইমরান কাদেরী, মাওলানা ফেরদৌস আরম আলকাদেরী, মাওলানা আবদুল খালেক, মাওলানা হারুন উর রশীদ চৌধুরী প্রমূখ।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.