নোয়াখালী গণধর্ষণ মামলার দুই আসামি চট্টগ্রামে গ্রেফতার

0

সিটি নিউজ,চট্টগ্রাম : নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলায় চার সন্তানের গৃহবধূকে(৩২) সংঘবদ্ধ ধর্ষণ মামলার আরও দুই আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।চট্টগ্রামের নাজিরহাট থেকে জসিম উদ্দিন (৩৫) এবং ডাবলমুরিং এলাকা থেকে হাসান আলী ভুলুকে (৬০) গ্রেফতার করেন পুলিশ।

আজ শুক্রবার ৪ জানুয়ারি বিকেল ৩টা পর্যন্ত গণধর্ষণের মামলায় এজাহারভুক্ত নয় আসামির মধ্যে পাঁচজন, গণধর্ষণের মূলহোতা চরজুবলী ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) সাবেক সদস্য রুহুল আমিন ও জড়িত সন্দেহে জসিম উদ্দিনসহ ৭ জনকে গ্রেফতার করা হয়।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও চরজব্বর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল জানান, জসিমের অবস্থান জেনে চরজব্বর থানা পুলিশের একটি দল ডিবি পুলিশের সহযোগিতায় অভিযান শুরু করে। শুক্রবার ভোর রাতে চট্টগ্রামের নাজিরহাট এলাকা থেকে জসিম উদ্দিন ওরফে জইস্যাকে গণধর্ষণের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে গ্রেফতার করে।

জসিম উদ্দিন এ মামলার এজাহারভুক্ত আসামি না। তবে তদন্তে তার নাম আসায় তাকে চট্টগ্রাম থেকে গ্রেফতার করে নোয়াখালীতে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।

নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) ইলিয়াছ শরীফ বলেন, দুপুর ১টায় চট্টগ্রামের ডাবলমুরিং এলাকা থেকে এজাহারভুক্ত অন্যতম আসামি হাসান আলী ভুলুকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ পর্যন্ত গণধর্ষণের মামলায় এজাহারভুক্ত ৯ জনের মধ্যে ৫ জন এবং গণধর্ষণের মূলহোতা রুহুল আমিনসহ সাত জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

গত ৩১ ডিসেম্বর (সোমবার) রাত ১১টার দিকে নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার চরজুবলী ইউনিয়নের চরবাগ্গা গ্রামে স্বামী-সন্তানকে বেঁধে চার সন্তানের জননীকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে। বিরোধী একটি দলকে ভোট দেওয়ায় বর্বরোচিত এ ঘটনা ঘটেছে বলে ধর্ষিতার স্বামী অভিযোগ করেছেন। অভিযুক্ত ৯ জনকে আসামি করে গৃহবধূর স্বামী বাদী হয়ে চর জব্বার থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের হয়েছে।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.