পদ্মা সেতুর কাজের অগ্রগতি ৬৩ শতাংশঃ কাদের

0

সিটি নিউজ ডেস্কঃ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন পদ্মা বহুমুখী সেতু প্রকল্পের সার্বিক অগ্রগতি শতকরা ৬৩ ভাগ হয়েছে জানিয়ে, সেতুর মোট ২৬১টি পাইলের মধ্যে ১৯১টির কাজ সম্পন্ন এবং আরও ১৫টি পাইলের আংশিক কাজ শেষ হয়েছে।

এছাড়া মোট ৪২টি পিলারের মধ্যে ১৬টির কাজ পুরোপুরি সম্পন্ন হয়েছে এবং ১৫টির কাজ চলমান রয়েছে। মোট ৪১টি স্প্যানের মধ্যে এ পর্যন্ত ৬টি স্থাপন করা হয়েছে। ফলে এখন ৯০০ মিটার দৃশ্যমান।

আজ রবিবার (২০ জানুয়ারী) রাজধানীর বনানীতে সেতু ভবনের সম্মেলন কক্ষে সেতু বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভা শেষে তিনি এ তথ্য জানান ।

মন্ত্রী জানান, ৩.৪ কিলোমিটার দীর্ঘ ও চারলেন বিশিষ্ট কর্ণফুলী নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণে ব্যয় হবে ৯ হাজার ৮৮০ কোটি ৪০ লাখ টাকা। খনন কাজের জন্য চীন থেকে সংগৃহীত মেশিনের পরীক্ষা-নিরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে। ফেব্রুয়ারি মাসের মাঝামাঝিতে আনুষ্ঠানিকভাবে কর্ণফুলী টানেলের খনন কাজ শুরু হবে। ৩১ ডিসেম্বর’ ২০১৮ পর্যন্ত সার্বিক অগ্রগতি শতকরা ৩০ ভাগ। ২০২২ সালে টানেলটির নির্মাণ কাজ শেষ হবে। এছাড়াও যমুনা নদীর তলদেশে টানেল নির্মাণ প্রকল্পের প্রস্তাব পরিকল্পনা কমিশনে রয়েছে বলে জানান তিনি।

সভায় জানানো হয়, ৮ হাজার ৯৪০ কোটি ১৮ লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মাণাধীন ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে পিপিপি প্রকল্পের ভৌত কাজ এ পর্যন্ত ১ হাজার ২৮৯টি পাইল, ২৭০টি পাইল ক্যাপ, ৫৬টি ক্রস-বিম, কলাম ১৫৭ (সম্পূর্ণ) ও ৮২টি (আংশিক), ১৮৬টি আই গার্ডার নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। প্রথম ধাপের ক্ষতিপূরণ ইতোমধ্যে দেয়া হয়েছে এবং ২য় ও ৩য় ধাপের ক্ষতিপূরণ দেয়া চলমান আছে।

উল্লেখ্য ঢাকা এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে পিপিপি প্রকল্পের বিনিয়োগকারী প্রতিষ্ঠান ইতালিয়ান থাই ডেভলেপমেন্ট পাবলিক কোম্পানি লিমিটেড। র‌্যামসহ সর্বমোট দৈর্ঘ্য ৪৬.৭৩ কি.মি.। এর মধ্যে মেইন লাইন ১৯.৭৩ কি.মি.। এক্সপ্রেসওয়েটি শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর-কুড়িল-বনানী-মহাখালী-তেজগাঁও-মগবাজার-কমলাপুর-সায়েদাবাদ-যাত্রাবাড়ী হয়ে ঢাকা চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুতুবখালীতে মিলিত হবে। প্রকল্পটি ৩টি ধাপে সম্পন্ন হবে। ১ম ধাপ- শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে বনানী, ২য় ধাপ- বনানী থেকে বড়মগবাজার, ৩য় ধাপ- বড় মগবাজার থেকে কুতুবখালী।

এদিকে নির্বাচন নিখুঁত হয়নি বলে জাতিসংঘ যে বক্তব্য দিয়েছে তার প্রেক্ষিতে সাংবাদিকরা জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, কোন দেশে ইলেকশন পারফেক্ট হয়েছে, একটা দেশ দেখান। গণতান্ত্রিক দেশগুলোতে পারফেক্ট বলে যে কথাটি বলা হয় তাতেও কিছু খুঁত তো থাকেই। তাতে ইলেকশনের বৈধতা নিয়ে প্রশ্ন উঠে না।

তিনি আরো বলেন, সরকারের সঙ্গে কাজ করার জন্য তাদের জাতিসংঘের পক্ষ থেকে এরইমধ্যে জোরালোভাবে বলা হয়েছে।

জনগণের চোখ অন্যদিকে ফেরাতে আওয়ামী লীগ বিজয় সমাবেশ করছে বলে মির্জা ফখরুলের এমন বক্তব্যের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, বিএনপি আর ফখরুল ইসলাম আলমগীর নির্বাচনকে প্রশ্নবিদ্ধ করতে দেশে-বিদেশে যে, অপপ্রয়াস তারা চালিয়েছে তা ব্যর্থতায় পর্যবসিত হয়েছে। এখন নির্বাচন নিয়ে যে বিষয়টা তারা বলছে, এটা পরাজিতের মুখে ব্যর্থতার প্রলাপ।

দুর্নীতির বিষয়ে সরকারের কঠোর অবস্থানের কথা জানিয়ে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হবে। মেগা প্রজেক্টগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে। এ জন্য আমাদের স্বচ্ছতা, নীতি ও পরিচ্ছন্ন থাকতে হবে।

 

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.