প্রেম-ব্রেক আপ জোন অভিনেত্রীর জন্য স্বাস্থ্যসম্মত- নুসরাত ফারিয়া

0

সিটি নিউজ ডেস্ক :  নুসরাত ফারিয়া মাজহার। মাত্র অল্প কয়েকদিনেই চলচ্চিত্রাঙ্গণে ঝড় তুলেছেন তিনি। একজন অভিনেত্রীর জন্য প্রেম করে ব্রেক আপ জোনে যাওয়া এবং পুনরায় প্রেম করা স্বাস্থ্যসম্মত বলে মনে করেন তিনি।

সম্প্রতি নিজের জীবনের প্রেম ভালোবাসা নিয়ে ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকায় এক সাক্ষাৎকারে ফারিয়া বলেন, আমার প্রেম তিন মাসের বেশি টেকে না। আবার ব্রেক আপ জোনে যাই। আবার প্রেম। অভিনেত্রীর জন্য এটা খুব স্বাস্থ্যসম্মত। ব্রেকআপ হয়েছিল বলে ‘পটাকা’-র মতো গান করতে পেরেছি। যা সুপারহিট।

তিনি বলেন, আমি প্রথমে ভাবিনি অভিনেত্রী হব। স্টেজ শো করতাম। উপস্থাপিকা ছিলাম। সেখান থেকে আর জে। তারপর প্রথম ছবির প্রস্তাব এল। আজিজ ভাই বললেন ছবি করার কথা। সেখান থেকে কলকাতায় আজিজ ভাই আর এসকে মুভিজের কর্ণধার আসেন। ‘আশিকী’ তৈরি হয়। এক রাত্রে ‘আশিকী’র সাফল্য আমায় অভিনেত্রী করেছিল। আমি ডিবেট দিয়ে শুরু করে ছবিতে এলাম। আমি এই সময়টার জন্য অপেক্ষা করছিলাম। মাঝে অন্য কিছু করিনি। ‘আশিকী’-র পরে নিজেকে সংশোধন করতে শুরু করলাম।

ফারিয়া বলেন, লোকে ভাবে বাংলাদেশের নায়িকা মোটা হবে। এটা আমি ভেঙে দিতে চেয়েছিলাম। ভেবেছিলাম নিজের মধ্যে এমন কিছু আনতে হবে যার জন্য মানুষ আমার কাছে আসবে। আমি একদিন টেলিভিশন না দেখে থাকতে পারব, কিন্তু জিমে না গিয়ে বাঁচতে পারব না। জিমে কোন দিন কী কাপড় পরব সেটাও আমার ঠিক করা থাকে। খাওয়াদাওয়ার ব্যাপারেও তাই।

কম পোশাক পরার প্রবণতার বিষয়ে এই অভিনেত্রী বলেন, আমি যে কাপড়ে কমফর্টেবল। দেখি আমায় সুন্দর লাগে, আমি পরি। আমি লোকের কথা ভেবে চললে এই জায়গায় আসতে পারতাম না। মানুষ যক্ষের মতো বসে থাকে আমি কী কী করছি, পরছি।

‘আল্লাহ মেহেরবান’ গান নিয়ে সমালোচনার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, সবার এতটুকু বিবেকবোধ ও বিবেচনা থাকা উচিত যে এটা অভিনয়। কোনও কিছুকে আঘাত করার জন্য নয়। কখনওই শিল্পী তার নিজের পছন্দমতো পোশাক পরে নাচতে পারে না। এটা পুরো টিমের সিদ্ধান্ত। গানটির জন্য প্রায় তিন মাস পরিশ্রম করেছি।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.