বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয় দিচ্ছেঃ কাদের

0

সিটি নিউজ ডেস্কঃ  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে স্বতন্ত্র প্রার্থী মনোনয় দিচ্ছে। বিএনপি উপজেলা নির্বাচনে দলীয়ভাবে অংশ না নেয়ার ঘোষণা দিলেও ভেতরে ভেতরে প্রস্তুতি নিচ্ছে।

আজ মঙ্গলবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর ধানমন্ডিতে আওয়ামী লীগ সভানেত্রীর রাজনৈতিক কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, মির্জা ফখরুল তার এলাকায় যেখানে তিনি নির্বাচিত হয়েছেন, তাদের চাপের মুখে তিনি কতকাল দলীয় সিদ্ধান্ত মেনে নিতে পারবেন সেটাও তো ভেবে দেখতে হবে। ‘স্ট্রাটেজিক’ কারণে পরবর্তীতে সিদ্ধান্ত পরবর্তিত হতে পারে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

এ সময় জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট প্রার্থী সুলতান মোহাম্মদ মনসুরের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, তিনি আওয়ামী লীগে ফিরছেন কি না, এটা তার নিজের সিদ্ধান্তের বিষয়। এটা তার নিজস্ব চিন্তা-ধারণা, এটা নিয়ে তার সঙ্গে আমার কোনো কথা হয়নি। আর এ ধরনের কোনো প্রস্তাব আমি দিতে যাব কেন? তারও বিবেক আছে, রাজনীতি করে। কাজেই সে তার বিবেক থেকে এ সিদ্ধান্ত নিতে পারে। আমরা কেন তাকে ইনফ্লুয়েন্স করব।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে সেতুমন্ত্রী বলেন, আমরা আমাদের প্রার্থীদের টাকা দিতে পারি না, বিএনপিকে টাকা দিব কোন দুঃখে। নির্বাচনে অর্থ দেওয়ার জন্য তো আমাদের ব্রাইব করার দরকার নেই। সারা দেশে গণজাগরণ, আমরা সারা দেশে বেশিরভাগ আসনে বিপুল ভোটে জয়লাভ করতে যাচ্ছি। সে অবস্থায় আমরা অন্যকে কেন ঘুষ দিতে যাব? এর কোনো দরকার আছে? এটা অপ্রয়োজনীয়।

উপজেলা নির্বাচনের দলীয় মনোনয়ন প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, আমরা যাচাই বাছাই করে মনোনয়ন দেব। এখানে শুধুমাত্র তৃণমূল থেকে তিনজনের নাম চেয়েছি। এক থেকে তিন জনের বেশি নয়, আবার একজন বা দু’জন বা তিন জনের নামও কেউ দিতে পারেন।

ওবায়দুল কাদের বলেন, মনোনয়নের বিষয়ে এখানে আমরা দেখব যে, সংশ্লিষ্ট জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদ এবং উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের স্বাক্ষর রয়েছে কিনা। সেই সঙ্গে উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা করে প্রার্থী বাছাই করা হয়েছে কিনা, সেটাও দেখা হবে। যদি কোথাও নিয়মের ব্যত্যয় ঘটে সেখানে আমরা জরিপের প্রতিবেদন অনুস্মরণ করব। কাজেই মনোনয়ন দেয়ার ক্ষেত্রে সবকিছু পরখ করে দেখা হবে।

পোড় খাওয়ারাই মনোনয়ন পাবেন এমনটি জানিয়ে তিনি বলেন, আমরা যখন সরকারে ছিলাম না তখন জেলা-উপজেলা পর্যায়ে আওয়ামী লীগের অনেকেই ক্ষমতাসীন দলের জুলুম-নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। তারাই (ত্যাগীরাই) তো আওয়ামী লীগকে ধরে রেখেছে। সুতরাং তাদের মনোনয়ন চাইতে কোনো দোষ নেই।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.