সারাদেশে চলছে বই উৎসব

0

সিটি নিউজ ডেস্কঃ বছরের প্রথম দিন পাঠ্যপুস্তক উৎসববর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে সারাদেশে একযোগে ‘পাঠ্যপুস্তক উৎসব দিবস’ পালন চলছে।

আজ মঙ্গলবার (১ জানুয়ারী) প্রথম থেকে নবম শ্রেণির সব শিক্ষার্থীর হাতে বিনামূল্যের নতুন পাঠ্যবই তুলে দেওয়া হচ্ছে। এ বছর বিতরণ করা হবে ৩৫ কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার ৮৮২টি নতুন পাঠ্যবই।

কেন্দ্রীয়ভাবে এ বছর শিক্ষা এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় রাজধানীর মতিঝিল সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ে এই বই উৎসবের আয়োজন করে।

এ সময় শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ প্রধান অতিথি হিসেবে শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে বই উৎসবের সূচনা করেন। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান।

এর আগে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা (২৪ ডিসেম্বর) শিশুদের হাতে নতুন বই তুলে দিয়ে উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ডের (এনসিটিবি) চেয়ারম্যান প্রফেসর নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, ‌দেশে পাঠ্যবই উৎসব পালনে কোনও ধরনের সমস্যা না হয়, সেজন্য আমরা প্রয়োজনীয় সব বই মুদ্রণ শেষে প্রতিটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পৌঁছে দিয়েছি। আশা করছি, বিনামূল্যের এই বই পেতে শিক্ষার্থীদের কোনও সমস্যা হবে না।

এনসিটিবি তথ্য অনুযায়ী, নতুন শিক্ষাবর্ষে প্রাক-প্রাথমিক স্তরের ৩৪ লাখ ২৮ হাজার ১০ শিক্ষার্থীর জন্য ৬৮ লাখ ৫৬ হাজার ২০টি পাঠ্যপুস্তক দেয়া হবে। এছাড়া প্রাথমিক স্তরের দুই কোটি ৩৭ লাখ ৭ হাজার ১ জন শিক্ষার্থীর জন্য ৯ কোটি ৮৮ লাখ ৮২ হাজার ৮৯৯টি; প্রাক-প্রাথমিক, প্রথম ও দ্বিতীয় শ্রেণীর ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠীর পাঁচটি ভাষার ৯৮ হাজার ১৪৪ শিক্ষার্থীর জন্য ২ লাখ ৭৬ হাজার ৭৮৪টি; মাধ্যমিক স্তরের বাংলা, ইংরেজি ভার্সন, ইবতেদায়ি, দাখিল, দাখিল ভোকেশনাল, কারিগরির এক কোটি ৮৭ লাখ ১৫ হাজার ৯৬০ জন শিক্ষার্থীর জন্য ২৪ কোটি ৬০ লাখ ৫২ হাজার ৬১টি পাঠ্যপুস্তক রয়েছে।

২০১০ সাল থেকে সরকার প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, ইবতেদায়ি, মাধ্যমিক, দাখিল, দাখিল (ভোকেশনাল) ও এসএসসি (ভোকেশনাল) স্তরে বিনামূল্যে পাঠ্যবই দিচ্ছে।

২০১৮ সাল পর্যন্ত সর্বমোট ২৬০ কোটি ৮৬ লাখ ৯১ হাজার ২৯০ কপি পাঠ্যপুস্তক বিনামূল্যে বিতরণ করেছে সরকার।

শিক্ষামন্ত্রী নূরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, আগামী দিনের বাংলাদেশকে এগিয়ে নিতে সময়োপযোগী আধুনিক ও উন্নত শিক্ষা নিশ্চিত করাই হবে সরকারের কাজ। ‌বিনামূল্যে পাঠ্যপুস্তক বিতরণের মাধ্যমে বাংলাদেশ বিশ্বে এক অনন্য নজির স্থাপন করেছে।

আজ মঙ্গলবার (১ জানুয়ারি) বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যের পাঠ্যপুস্তক তুলে দিয়ে ‘পাঠ্যপুস্তক উৎসব’-এর উদ্বোধন করে শিক্ষামন্ত্রী এসব কথা বলেন। তিনি আট জন শিক্ষার্থীর হাতে নতুন এক সেট করে বই তুলে দেন।

তার আগে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে রাজধানীর আজিমপুর গভর্নমেন্ট গার্লস স্কুল অ্যান্ড কলেজে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে আয়োজিত বিনামূল্যের বই বিতরণ কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন শিক্ষামন্ত্রী।

এরআগে ২৪ ডিসেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বই বিতরণ শুরু করেন। এবার দেশব্যাপী প্রাক-প্রাথমিক, প্রাথমিক, মাধ্যমিক, ইবতেদায়ি, দাখিল, দাখিল ভোকেশনাল, এসএসসি ভোকেশনাল, ক্ষুদ্র নৃগোষ্ঠী এবং দৃষ্টি প্রতিবন্ধীসহ চার কোটি ২৬ লাখ ১৯ হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে ৩৫ কোটি ২১ লাখ ৯৭ হাজার ৮৮২ পাঠ্যবই বিতরণ করা হচ্ছে।

চট্টগ্রামেও বেলা পৌনে ১১টার দিকে জেলা প্রশাসক মো. ইলিয়াস হোসেন স্কুলে এসে অতিথিদের সঙ্গে নিয়ে বই উৎসব-২০১৯ এর আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.