অবশেষে প্লে-অফে সাকিবের ঢাকা

0

স্পোর্টস ডেস্কঃ এবার বিপিএল এ প্রথম দিকে ঢাকা ডাইনামাইটস খুবই দাপটের সাথে খেললেও পরবর্তীতে পথ হারিয়ে ফেলে। সাকিব বাহিনী এমন এক সমীকরণে উপনীত যে আজ হারলেই বিদায়। বিকল্প ভাবনার সুযোগ ছিল না ঢাকা ডায়নামাইটসের। দেয়ালে পিঠ ঠেকিয়ে দারুণ এক জয়ই তুলে নিল সাকিব আল হাসানের দল। খুলনা টাইটান্সকে ৬ উইকেট আর ৩১ বল হাতে রেখে হারিয়ে প্লে-অফে পা রেখেছে তারা।

সাকিবদের এই জয়ে কপাল পুড়েছে রাজশাহী কিংসেরও। তাদের ঢাকা ডায়নামাইটসের মতো ১২ পয়েন্ট। কিন্তু রানরেটে পিছিয়ে থাকায় প্লে-অফ খেলা হচ্ছে না মেহেদী হাসান মিরাজের দলের।

বাঁচা মরার লড়াইয়ে আজ ঢাকার জন্য এটি অঘোষিত ফাইনাল। কারণ ১১ ম্যাচে ৫ জয় ও ৬ হার নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের পঞ্চম স্থানে অবস্থান করছে ঢাকা। অন্যদিকে ১২ ম্যাচে ৬ জয় ও ৬ হার নিয়ে চতুর্থস্থানে রাজশাহী কিংস।

লক্ষ্য খুব বড় ছিল না ঢাকার, মাত্র ১২৪ রানের। দুই ওপেনার উপুল থারাঙ্গা আর সুনিল নারিন এই লক্ষ্যকে আরও সহজ করে দেন। মাত্র ১৩ বলে ২ চার আর ৪ ছক্কায় ৩৫ রান করেন নারিন। ৩০ বলে থারাঙ্গা খেলেন ৪২ রানের ইনিংস।

মাঝে সাকিব (১) আর মিজানুর রহমানকে (০) অল্প রানে হারিয়ে কিছুটা বিপদে পড়েছিল ঢাকা। ৮৮ রানে তারা খুইয়েছিল ৪ উইকেট। তবে নুরুল হাসানের ব্যাটে সেই বিপদ কাটাতে সময় লাগেনি। ২৬ বলে ২ চার আর ১ ছক্কায় নুরুল অপরাজিত থাকেন ২৭ রানে। পোলার্ড অপরাজিত ছিলেন ৯ রানে।

এর আগে খুলনা টাইটান্সকে ৯ উইকেটে ১২৩ রানেই আটকে দিয়েছিল ঢাকা ডায়নামাইটস। সাকিব-রুবেলদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে খুলনার ব্যাটসম্যানরা হাত খুলে খেলতে পারেননি।

নাজমুল হাসান শান্ত আর ডেভিড উইজ যা একটু লড়াই করেছেন। ২০ বলে একটি করে চার ছক্কায় শান্ত করেন ২৪ রান। আর ২৭ বলে সমান চার ছক্কায় ৩০ রানে অপরাজিত থাকেন উইজ।

ঢাকার বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে সফল রুবেল হোসেন। ৪ ওভারে ২৭ রান খরচায় ২টি উইকেট নেন এই পেসার। ২টি উইকেট নেন সাকিবও, তবে তিনি ৪ ওভারে ৩২ রান খরচ করেন।

এ বিভাগের আরও খবর

আপনার মতামত লিখুন :

Your email address will not be published.