ভারতে সাংসদসহ ১১ জনকে গুলি করে হত্যা

0

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ  ভারতে সংসদ সদস্যসহ ১১ জনকে গুলি করে হত্যা করেছে। ভারতের অরুণাচল প্রদেশের ন্যাশনাল পিপল’স পার্টির তিরং আবহ এবং তার পুত্রসহ ১১ জনকে নির্বিচারে গুলি করে হত্যা করেছে দুষ্কৃতকারীরা।

আজ মঙ্গলবার (২১ মে) তিরাপ জেলার বোগাপানি এলাকায়  এই ঘটনা ঘটেছে। তবে এখন পর্যন্ত দায় স্বীকার করেনি কোনও সংগঠন।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম জি-নিউজ জানায়, পুলিশ অনুমান করছে ন্যাশনাল সোসালিস্ট কাউন্সিল অব ন্যাগাল্যান্ড (এনএসসিএন) এই ঘটনার নেপথ্যে থাকতে পারে।

ন্যাশনাল পিপল’স পার্টির ওই নেতা খোনসা পশ্চিম বিধানসভা কেন্দ্রের বিদায়ী সংসদ সদস্য। লোকসভা এবং বিধানসভা একসঙ্গে নির্বাচন হয় অরুণাচল প্রদেশে। রোববারই শেষ হয় লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফার ভোটগ্রহণ।

জানা গিয়েছে, বিধানসভা ভোটের পুনর্নিবাচনের দাবি জানিয়েছিলেন তিরং আবহ। তবে, কী কারণে তাকে হত্যা করা হল এখন পর্যন্ত স্পষ্ট নয়। তিরঙের দেহরক্ষীর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা যাচ্ছে।

ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা জানায়, প্রাথমিকভাবে জানা গিয়েছে, প্রায় ২০ জন আততায়ী ঘিরে ফেলে পশ্চিম খোনসা বিধানসভার বিধায়ক তিরং আবহ এবং তার সঙ্গীদের। প্রত্যেকের হাতেই ছিল অত্যাধুনিক স্বয়ংক্রিয় রাইফেল। তিরং এবং তার সঙ্গীদের ঘিরে ধরে এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করে আততায়ীরা। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় তিরং এবং তার দশ সঙ্গীর।

তিরাপের জেলাশাসক পি এস থুঙ্গন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানিয়েছেন, আততায়ীদের হাতে বিধায়ক-সহ ১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রাথমিকভাবে পুলিশ নাগা জঙ্গি সংগঠন এনএসসিএন (খাপলাং) গোষ্ঠীকে সন্দেহ করছে। তিরাপ জেলায় ওই সংগঠনের যথেষ্ট প্রভাব রয়েছে। খাপলাং গোষ্ঠীর একটি অংশ আলোচনায় বসার বার্তা দিলেও, ওই সংগঠনের মিয়ানমার থেকে নিষ্ক্রিয় অংশ এখনও আলোচনায় রাজি নয়।

ন্যাশনাল পিপলস পার্টির ওই বিধায়ক সদ্য সমাপ্ত অরুণাচল বিধানসভা নির্বাচনে পশ্চিম খোনসা কেন্দ্র থেকেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন এবং তিনি তার কেন্দ্রে পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়েছিলেন।

অরুণাচল পুলিশের আইজি সুনীল গর্গও জানিয়েছেন, তারা সন্দেহ করছেন জঙ্গিরাই হত্যা করেছে তিরং এবং তার সঙ্গীদের। ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে আসম রাইফেলস এবং পুলিশ। তারা জঙ্গিদের খোঁজে চিরুণি তল্লাশি শুরু করেছে।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.