চাঞ্চল্যকর চুমকী হত্যা,পটিয়ায় ৭ মাস পর লাশ উত্তোলন

0

সুজিত দত্ত,পটিয়া প্রতিনিধি: চট্টগ্রামের পটিয়ায় আদালতের নিদের্শে চাঞ্চল্যকর চুমকী হত্যা মামলার অধিকতার তদন্তের জন্য আদালতের নিদের্শে ৭ মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন করা হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় উপজেলার কুসুমপুরা ইউনিয়নের বিনিনিহারা গ্রাম থেকে শ্বশুড় পরিবারের পারিবারিক কবরস্থান থেকে এই লাশ উত্তোলন করা হয়।

এই সময় পটিয়ার নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভুমি) সাব্বির আহমদ সানি লাশ উত্তোলনে ম্যাজিষ্ট্রেট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন এছাড়াও সিআইডি পুলিশের পরিদর্শক ও মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা নুরুল হাকিম এবং এস আই রাজিয়া আকতার এবং পটিয়া থানার এস আই জাহাঙ্গীর আলম সহ স্থানীয় ইউপি সদস্য মো: ইউনুছ উপস্থিত ছিলেন।

এ নিয়ে চুমকীর শ্বশুড় পরিবারের পারিবারিক কবরস্থান থেকে গলিত লাশের অবশিষ্ট অংশ উত্তোলন করে দ্বিতীয় দফা ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করল সি আইডি। উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের ১৪ নভেম্বর গৃহবধূ চুমকীর লাশ ঘর থেকে পুলিশ উদ্ধার করে।

পারিবারিক কলহের জের ধরে চুমকীকে হত্যার অভিযোগে তার পিতা গোলাম মোস্তফা আদালতে একটি মামলা দায় করেন এ মামলায় স্বামী শাশুড়ি সহ ৭ সাত জন কে আসামী করা হয়। বর্তমানে আসামীরা উ”চতর আদালত কর্তৃক জামিনে রয়েছেন।

পটিয়া নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের পেশকার বিধান মিত্র জানিয়েছেন, সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট (পটিয়া) আদালতে হত্যা মামলাটি বিচারাধীন থাকা অবস্থায় বিচারক মামলাটি তদন্তের জন্য সিআইডি পুলিশকে নির্দেশ দেন। এর প্রেক্ষিতে সিআইডি পুলিশ ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে লাশ উত্তোলন করে মর্গে প্রেরণ করেন।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.