ডিবি পুলিশ ১৬১টি ভারতীয় পুরাতন মোবাইল উদ্ধার করেছে

0

সিটি নিউজঃ বন্দর নগরী চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানাধীন সিডিএ মার্কেট (রয়েল প্লাজা) ৩য় তলার সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের অফিস কক্ষে বিশেষ অভিযান চালিয়ে বিভিন্ন ব্রান্ডের ১৬১টি  ভারতীয় পুরাতন মোবাইল সেট উদ্ধার করেছে মহানগর গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগ। পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি। তবে পুলিশ এ কাজে জড়িত ৪ জনের পরিচয় পেয়েছে। ভারতীয় পুরাতন মোবাইল সেট গুলো চোরাইপথে এনে বিক্রয় করার জন্যে আনা হয়েছে।

তারা হলঃ  মোঃ আবদার উদ্দিন (২৮) পিতা-রফিক আহম্মদ মাতা-কুলসুমা বেগম সাং-জমিরঘোনা, আধুনগর, থানা-লোহাগড়া জেলা-চট্টগ্রাম; বর্তমানে-মালিক-কেটেল, গলি নং-০১, দোকান নং-২৩, হাসিনা হক শপিং কমপ্লেক্স, তামাকুন্ডি লেইন, রিয়াজউদ্দিন বাজার, থানা-কোতোয়ালী, চট্টগ্রাম, নিজাম উদ্দিন (৪০) পিতা-অজ্ঞাত, সাং-করিম উল্যা মার্কেট, বন্দরবাজার, থানা-কোতোয়ালী, সিলেট, সাহল খান (৩৩) ক্যাশিয়ার, সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিস প্রাঃ লিঃ, সাং-দিলখুশা, ঢাকা ও মোঃ আরিফ (৩৭) পিতা-অজ্ঞাত, সাং-করিম উল্যা মার্কেট, বন্দরবাজার, থানা-কোতোয়ালী, সিলেট।

চট্টগ্রাম মহানগর গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগের একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে চট্টগ্রামের কোতোয়ালী থানাধীন সিডিএ মার্কেট (রয়েল প্লাজা) ৩য় তলার সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের অফিস কক্ষে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে বিভিন্ন ব্রান্ডের ১৬১টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা যায়, ভারতে ব্যবহৃত মোবাইল ফোন চোরাচালানের মাধ্যমে সিলেটের সীমান্তবর্তী এলাকা দিয়ে স্বল্প দামে আনয়ন পূর্বক বাজারজাত করার উদ্দেশ্যে সুন্দরবন কুরিয়ার সার্ভিসের অসাধু কর্মকর্তা/কর্মচারীদের সহযোগিতায় ঘটনাস্থলে প্রেরণ করেছে।

উপরোক্ত আসামীগণসহ অজ্ঞাতনামা সহযোগিদের সাহায্যে অধিক মুনাফা লাভের উদ্দেশ্যে চোরাচালানের মাধ্যমে উদ্ধারকৃত আলামত তথা পুরাতন ব্যবহৃত মোবাইলগুলো বাংলাদেশের অভ্যন্তরে বাজারজাত করার উদ্দেশ্যে প্রেরন করেছে। পলাতক ও অজ্ঞাতনামা আসামীদেরর বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় নিয়মিত মামলা রুজু হয়েছে।

এ বিভাগের আরও খবর

আপনার মতামত লিখুন :

Your email address will not be published.