মশক নিধনে চসিকের ক্রাশ প্রোগ্রাম 

0

সিটি নিউজঃ মশক নিধনে আজ থেকে ক্রাশ প্রোগ্রাম শুরু করেছে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন। আজ সোমবার সকালে নগরীর জামালখান ওয়ার্ডস্থ মোমিন রোডের ঝাউতলা সেবক কলোনী এলাকায় মশক নিধনের ওষুধ ছিটিয়ে এ ক্রাশ প্রোগাম উদ্বোধন করেন চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আলহাজ্ব আ.জ.ম.নাছির উদ্দীন।

এসময় ১৭টি ফগার মেশিন ও ১৭টি হ্যান্ড স্প্রে মেশিন ব্যবহার করা হয়। উদ্বোধনকালে কাউন্সিলর শৈবাল দাশ সুমন, সংরক্ষিত ওয়ার্ড কাউন্সিলর মনোয়ারা বেগম মনি, জামাল খান ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব আবুল হাশেম,সাধারণ সম্পাদক মিথুন বড়ৃয়া, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আলহাজ্ব মোহাম্মদ সাহাবুদ্দিন,প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা শফিকুল মান্নান , উপ প্রধান পরিচ্ছন্ন কর্মকর্তা মোরশেদুল আলম চৌধুরীসহ পরিচ্ছন্ন বিভাগের কর্মকর্তা – কর্মচারী এবং স্থানীয় জনগন উপস্থিত ছিলেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিটি মেয়র বলেন, দেশের সংবাদ পত্রের মাধ্যমে আমরা জেনেছি ঢাকায় ডেঙ্গু ছড়িয়ে পড়েছে।চিকনগুনিয়া ও ডেঙ্গু থেকে রক্ষার উপায় হিসেবে চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন এ ক্রাশ প্রোগ্রাম শুরু করে। এর পাশাপাশি নগরবাসীর মধ্যে সচেতনতা সৃষ্টিতে গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপন ও লিফলেট বিতরনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি হাতে নিয়েছে চসিক । তাই এই ক্রাশ প্রোগ্রামে প্রতি ওয়ার্ডের ঝোপঝাড় পরিষ্কার ও নালায় যেখানে মশা জন্ম হয় সেখানে ওষুধ ছিটানো হবে। চিকনগুনিয়া ও ডেঙ্গু রোধে এই ক্রাশ প্রোগ্রাম। ডেঙ্গুসহ মশাবাহিত রোগ প্রতিরোধে নগরবাসীর সহযোগিতা কামনা করে মেয়র বলেন, পরিষ্কার ও বদ্ধ পানি এডিস মশার প্রজনন ক্ষেত্র। তাই বাসাবাড়ির আশপাশে ডাবের খোসায়, ফুলের টবে, ছাদে, ফ্রিজের নিচের ট্রেতে যাতে পানি জমে না থাকে ,সেদিকে খেয়াল রাখতে সংশ্লিষ্ট সকলের প্রতি আহবান সিটি মেয়রের। তিনি কারও জ্বর বা ডেঙ্গুর লক্ষণ দেখা দিলে চসিক জেনারেল হাসপাতাল ,দাতব্য চিকিৎসালয় ,আরবান হেলর্থ সেন্টারসহ নগরীর যেকোনো সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসকের শরণাপন্ন হবার আহ্বান জানান ।

তিনি আরও বলেন, এই ক্রাশ প্রোগানে প্রাপ্তবয়স্ক মশা নিধনের জন্য এডাল্টিসাইড এবং মশার লার্ভা (ডিম) ধ্বংসের জন্য লার্ভিসাইড ওষুধ ছিটানো হচ্ছে। ফগার মেশিনের সাহায্যে এডাল্টিসাইড ওষুধ ধোঁয়া আকারে ছিটানো হবে। হ্যান্ড স্প্রে মেশিনের সাহায্যে ১০ লিটার পানিতে ২০সিসি লার্ভিসাইড মিশিয়ে ছিটানো হবে। এই প্রসঙ্গে বাড়িতে বাড়িতে, পাড়া মহল্লায় মশার ওষুধ ছিটানো কাজে নিয়োজিত কর্মীদেরকে সর্বাত্মক সহযোগিতা কামনা করেন সিটি মেয়র।

বিশেষ মশক নিধন অভিযান উদ্বোধনের পর নগরের ৪১ ওয়ার্ডে ১৬১ জন স্প্রেম্যান ওষুধ ছিটানোর কাজ শুরু করে। এবার ২ কোটি টাকার ২৫ হাজার লিটার এডাল্টিসাইড, ১০ হাজার লিটার লার্ভিসাইড ওষুধ কিনেছে চসিক। এই প্রোগাম পরিচালনার জন্য ২কোটি টাকার মশা ও লার্ভা ধ্বংসকারী ওষুধ কেনা হয়েছে। প্রয়োজনে আরো ওষুধ কেনা হবে। এই কর্মসূচির স্ব্চছতা নিশ্চিতকরণে চসিকের বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতিসহ মেয়র নিজেই মনিটরিং করবে বলে অনুষ্টানে উল্লেখ করেন। চসিকে ১১০টি জার্মানির ফগার মোশিন ও ৩৫০টি হ্যান্ড স্প্রে মেশিন রয়েছে।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.