ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ

0

সিটি নিউজ ডেস্ক :  রাজধানী ঢাকাসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন স্থানে ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা ক্রমান্বয়ে যখন বৃদ্ধি পাচ্ছে এ সময় ডেঙ্গু প্রতিরোধে মাঠে নেমেছে চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ।বাংলাদেশ ছাত্রলীগ,চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও এনিম্যাল সাইন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ডেঙ্গু নামক ভয়াবহ মরণব্যাধি প্রতিরোধে সোমবার ৫ আগস্ট দুপুর ১২ টায় জনসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ এবং সাধারণ ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয় হলের ঝোপঝাড় পরিচ্ছন্ন ও ডেঙ্গু মশার বিস্তার রোধে মশার ঔষধ স্প্রে করেন।

বিশ্ববিদ্যালয় উপাচার্যসহ চসিক মেয়র আলহাজ্ব আ জ ম নাছির উদ্দীনের সার্বিক সহযোগিতা ও কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের নির্দেশক্রমে এই কর্মসূচী পালনে স্বিদ্ধান্ত গ্রহন করেন চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের নেতৃবৃন্দ। ছাত্রলীগ নেতৃবৃন্দ বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ শিক্ষার্থীদের সাথে নিয়ে সাধারণ জনগণের মধ্যে ডেঙ্গু ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার বিষয়ে সচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করেন।

সংক্ষিপ্ত সমাবেশে বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগ নেতা মুহাম্মদ শফিকুল আলম সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে এবং বাংলাদেশ ছাত্রলীগ কেন্দ্রীয় নির্বাহী সংসদের নির্দেশনায় FIGHT_TODAY_LIVE_TOMORROW প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে আমরা ডেঙ্গু মশা প্রতিরোধ কর্মসূচি হাতে নিয়েছি। আমরা দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে ডেঙ্গু মুক্ত বাংলাদেশ গড়তে চাই। আমরা বাংলাদেশ ছাত্রলীগ পরিবার সেটি সফল করার জন্য কাজ করছে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এর সকল ইউনিটে সারাদেশে এ কর্মসূচি পালন করবে। এ বিষয়ে জনসচেতনতা সৃষ্টি করতে সর্বোচ্চ ভূমিকা পালন করতে হবে শিক্ষার্থীদেরই।

বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের নেতা ডা: হামীম মল্লিক বলেন ”ডেঙ্গু জ্বর প্রতিরোধের মূল মন্ত্রই হল এডিস মশার বিস্তার রোধ এবং এই মশা যেন কামড়াতে না পারে, তার ব্যবস্থা করা। বাড়ির আশপাশের ঝোপঝাড়, জঙ্গল, জলাশয় ইত্যাদি পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। যেহেতু এডিস মশা মূলত এমন বস্তুর মধ্যে ডিম পাড়ে যেখানে স্বচ্ছ পানি জমে থাকে। তাই ফুলদানি, ডাবের খোসা, পরিত্যক্ত টায়ার ইত্যাদি সরিয়ে ফেলতে হবে। ব্যবহৃত জিনিস যেমন, মুখ খোলা পানির ট্যাংক, ফুলের টব ইত্যাদিতে যেন পানি জমে না থাকে, সে ব্যবস্থা করতে হবে।

উল্লেখ্য, এডিস মশা সাধারণত সকাল ও সন্ধ্যায় কামড়ায়। তবে অন্য সময়ও কামড়াতে পারে। তাই দিনে ঘরের চারদিকে দরজা জানালায় নেট লাগাতে হবে। দিনে ঘুমালে মশারি টাঙিয়ে অথবা কয়েল জ্বালিয়ে ঘুমাতে হবে।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.