মার্কিন কংগ্রেস ভবনে হামলাঃ বন্ধ করা হলো ট্রাম্পের ফেসবুক-টুইটার

0

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফেইসবুক-টুইটার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবনে ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকদের ব্যাপক বিক্ষোভ, ভাঙচুর ও সংঘর্ষের ঘটনার পর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটার ও ফেসবুক ট্রাম্পের বিরুদ্ধে কঠোর হয়েছে।

এরই মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনার পরই ট্রাম্পের করা তিনটি টুইট নীতিমালার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে মুছে দেয় টুইটার কর্তৃপক্ষ। এ ছাড়া ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট থেকে ১২ ঘণ্টা টুইট করা স্থগিত রাখা হয়।

এ ছাড়া টুইটারের পক্ষ থেকে হুঁশিয়ার করা হয়, ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট থেকে এরপর নীতিমালা ভঙ্গ করলে তাঁর অ্যাকাউন্ট স্থায়ীভাবে স্থগিত করা হবে।সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও এনবিসি নিউজের প্রতিবেদনে আজ বৃহস্পতিবার এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

এনবিসি নিউজ জানিয়েছে, ট্রাম্প তাঁর টুইটে একটি ভিডিও পোস্ট করে বরাবরের মতোই মার্কিন নির্বাচনে কারচুপি হয়েছে বলে দাবি করেন, যা ট্রাম্প সমর্থকদের উসকে দিতে পারে।

অন্যদিকে, ট্রাম্পের পোস্ট করা ওই ভিডিও মুছে দিয়েছে ফেসবুক ও ইউটিউব কর্তৃপক্ষও। ফেসবুক বলছে, দুটি নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগে ট্রাম্পের অ্যাকাউন্ট থেকে ২৪ ঘণ্টা পোস্ট করা স্থগিত রাখবে তাঁরা।

ইউটিউব কর্তৃপক্ষ এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, মার্কিন নির্বাচনে জালিয়াতি করা হয়েছে এমন অভিযোগ করে পোস্ট করা ট্রাম্পের ওই ভিডিও নীতিমালা ভঙ্গ করেছে।

যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবনে ডোনাল্ড ট্রাম্প সমর্থকদের ব্যাপক বিক্ষোভ, ভাঙচুর ও সংঘর্ষের ঘটনায় এখন পর্যন্ত গুলিতে এক নারী নিহত এবং কয়েকজন আহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় জাতীয় নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে এবং রাজধানী ওয়াশিংটনে সন্ধ্যা ৬টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত কারফিউ জারি করা হয়েছে। বিক্ষোভকারীদের শান্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন বিদায়ী মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর, এ ঘটনাকে নজিরবিহীন আখ্যা দিয়ে দুঃখজনক বলেছেন নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ খবর জানিয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রের আইন প্রণেতারা যখন গত নভেম্বরের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয় আনুষ্ঠানিকভাবে অনুমোদন করার জন্য অধিবেশনে বসেছিলেন, সেই সময় স্থানীয় সময় গতকাল বুধবার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের শত শত সমর্থক মার্কিন আইনসভা কংগ্রেসের ভবন ক্যাপিটলে ঢুকে পড়ে।

কয়েক ঘণ্টা কংগ্রেস ভবন কার্যত দখল করে রাখার পর বিক্ষোভকারীরা ধীরে ধীরে ক্যাপিটল প্রাঙ্গণ ছেড়ে বাইরে চলে যেতে থাকে।

এ বিভাগের আরও খবর

আপনার মতামত লিখুন :

Your email address will not be published.