বন্দুকযুদ্ধে লক্ষ্মীপুরে নিহত ১

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি : পুলিশের সঙ্গে বন্ধুকযুদ্ধে লক্ষ্মীপুর জেলার আসামি তারেক হোসেন (২৮) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। আহত হয়েছে ৪ পুলিশ সদস্য। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র-গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ। শনিবার রাত ২টার দিকে সদর উপজেলার পার্বতীনগর ইউনিয়নে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে।

তারেক সদর উপজেলার পার্বতীনগর ইউনিয়নের দক্ষিণ মকরদছ গ্রামের আবদুর শুকুর ওরফে সিরাজের ছেলে। আহত পুলিশ কনস্টেবলরা হলেন-মাঈন উদ্দিন, মহিন উদ্দিন, হেলাল চৌধুরী ও সালাউদ্দিন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার পার্বতীনগর এলাকায় একদল ডাকাত অবস্থান নিচ্ছিল। টহল পুলিশ ওই এলাকায় প্রতিদিনের মতো অভিযানে যায়। এ সময় টহল পুলিশের উপস্থিতি দেখে ডাকাতরা তাদের লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। একপর্যায়ে আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। এতে তারেক নামের এক ডাকাত দলের সদস্য গুলিবিদ্ধসহ ৪ পুলিশ সদস্য আহত হয়। এ সময় পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি দেশীয় বন্দুক ও ৪ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে।

আহতদের লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে আনা হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক গুলিবিদ্ধ তারেককে মৃত ঘোষণা করে। ওই ৪ পুলিশ সদস্য একই হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

লক্ষ্মীপুরের পুলিশ সুপার (এসপি) আ স ম মাহতাব উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, নিহত ডাকাত সদস্য তারেকের বিরুদ্ধে থানায় ১১টি মামলা রয়েছে। তারেক ২৫ মে বশিকপুর ইউনিয়নের দুই সহোদর ইব্রামি হোসেন রতন ও ইসমাইল হোসেন হত্যা মামলার আসামি।

এ বিভাগের আরও খবর

Comments are closed.