এখন থেকে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর

0

কারেন্ট টাইমসঃ চট্টগ্রামের সার্কিট হাউসকে জিয়া স্মৃতি জাদুঘর নামের পরিবর্তে এখন থেকে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর হিসেবে লেখা হবে। এমন প্রস্তাব দেয়ার পরই ছাত্রলীগ যুবলীগের নেতারা জিয়া স্মৃতি জাদুঘর এর নাম মুছে দিয়েছে।

আজ মঙ্গলবার (১২ ফেব্রুয়ারী)  দুপুরে ‘মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের ছাত্র ফোরাম, চট্টগ্রাম মহানগর শাখা’ ব্যানারে কাজীর দেউড়ির সার্কিট হাউজ এলাকায় মানববন্ধন শেষে জাদুঘরের গেটের সামনে লাগানো সাইনবোর্ড থেকে জিয়ার নাম মুছে দেন।

তারা গেটে শিক্ষা উপমন্ত্রী ও সাবেক সিটি মেয়র মরহুম এবিএম মহিউদ্দিন চৌধুরী ছেলে ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান নওফেলের ছবিসহ একটি ব্যানার লাগিয়ে দিয়েছেন।

মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের ছাত্র ফোরামের সভাপতি ও ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক কার্যনির্বাহী সদস্য আবদুর রহিম শামীমের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক ও নগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক রাহুল দাশের পরিচালনায় মানববন্ধন ছাত্রলীগ নেতারা বলেন, জিয়া একজন বিতর্কিত নেতা, তার নামে কখনও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি জাদুঘর হতে পারে না। স্বাধীনতা দিবসের আগে এ জাদুঘরের নাম পরিবর্তন করে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর নামকরণ করতে হবে।

গত সোমবার ঢাকায় মন্ত্রিসভার বৈঠকে জিয়া স্মৃতি জাদুঘরকে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর করার প্রস্তাব দেন শিক্ষা উপমন্ত্রী নওফেল।

এ বিষয়ে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, জিয়া স্মৃতি জাদুঘরকে মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি জাদুঘর করা হচ্ছে। এটি চট্টগ্রামের মুক্তিযোদ্ধাসহ সর্বস্তরের মানুষের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল। আমি এ আসনের সংসদ সদস্য হিসেবে প্রস্তাবনা দিয়েছি। যেহেতু সবার সম্মতি আছে, তাই এখন লিখিত প্রস্তাবনা দিলে হয়ে যাবে।

 

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.