শুভ জন্মদিনে শুভেচ্ছায় সিক্ত ফরিদ মাহমুদ

0

গোলাম সরওয়ার,সিটি নিউজ : শুভ জন্মদিন,জন্মদিনের শুভেচ্ছা।বিশিষ্ট সমাজ সেবক ও রাজনীতিবিদ ফরিদ মাহমুদের শুভ জন্মদিন আজ রোববার ৭ এপ্রিল। চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী যুবলীগের সংগ্রামী যুগ্ম আহবায়ক, রাজনীতির শুদ্ধপুরুষ আলহাজ্ব ফরিদ মাহমুদ এর শুভ জন্মদিন-২০১৯ উদযাপন উপলক্ষে নিউজপোর্টাল সিটি নিউজ পরিবারের পক্ষ থেকে জানাই মুজিবীয় শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন।সেইসাথে আমরা তাঁর সু স্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করি। কিছু কিছু মানুষ আছেন, যারা পৃথিবীতে আসেন তাদের চারপাশের সবকিছুকে আলোকিত করার জন্য। তাদের উপস্থিতি সবাইকে আনন্দে মাতিয়ে রাখে।সেরকম একজন ব্যাক্তি ফরিদ মাহমুদ।

জন্মদিনের প্রথম প্রহর থেকেই জন্মদিনের শুভেচ্ছায় ভাসছেন ফরিদ মাহামুদ। জন্মদিনে পরিবারের সাথে কেক কেটে জন্মদিন উদযাপন শুরু করেন।জন্মদিনে মোবাইল ফোন কিংবা ফেইসবুক দুটোতেই শুধুই জন্মদিনের শুভেচ্ছায় সিক্ত। আর তার বাসা? সে তো জন্মদিনের প্রথম প্রহর থেকেই বন্ধু, কর্মী, ছোট ভাই আর শুভাকাঙ্ক্ষীদের দখলে। যেন মিলনমেলা। কারন বন্ধু, কর্মী, ছোট ভাই আর শুভাকাঙ্ক্ষীদের কাছে ফরিদ মাহামুদের জন্মদিন মানেই বিশেষ কিছু,যা আসে প্রতিবছরে মাত্র একবার।

চট্টল বীর প্রয়াত মহিউদ্দিন চৌধুরীর হাতে গড়া তৃনমূল থেকে ওঠে আসা পরিশ্রমী পরীক্ষিত বিশ্বস্ত মাঠ পর্যায়ের কর্মী,চট্টলার যুব-সমাজের নয়নমণি ফরিদ মাহমুদ। শিশুকালে মহান মুক্তিযুদ্ধে পিতা হারা ফরিদ মাহমুদ ব্যবসা, রাজনীতি, সমাজ -সংস্কৃতি ও সাহিত্য সাধনায় সমানভাবে নিয়োজিত।

চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব, সাংবাদিক ইউনিয়ন, টিভি জার্নালিষ্ট ইউনিয়ন, সংবাদপত্র হকার্স এসোসিয়েশন, বিজয়ের বইমেলা, কথাশিল্পী শওকত ওসমান স্মৃতি পরিষদ, মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা চট্টগ্রাম সহ বিভিন্ন সংগঠনের আজীবন দাতা সদস্য, সংগঠক ছাড়াও বাংলাদেশ টেলিভিশন চট্টগ্রাম কেন্দ্রের স্বল্পকালীন অতিথি প্রযোজক ছিলেন তিনি। ব্যক্তিগত পেশায় এ্যাডভাটাইজিং ও ট্রেডিং ব্যবসায়ী ফরিদ মাহমুদ দুইপুত্র ও এক কন্যা সন্তানের জনক।

চট্টগ্রামের আওয়ামী যুবলীগের রাজনীতিতে অন্যতম মেধাবী নেতা ফরিদ মাহমুদ ১৯৯৩ সাল থেকে পত্র পত্রিকায় কলাম লেখা ছাড়াও অসংখ্য গল্প, কবিতা, নিবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে।
আছো আমার হৃদয় ভরে’ শিরোনামে মম প্রকাশ থেকে প্রথম গল্প গ্রন্থ প্রকাশিত হয় ১৯৯৬ এর একুশে বইমেলায়। প্রথম উপন্যাস ’একটি নীল পদ্ম’ প্রকাশিত হয় ১৯৯৮ এর একুশের বই মেলায়। ইত্যাদি গ্রন্থ প্রকাশ হতে’ মেঘ না চাইতে জল’ গল্পের বইটি প্রকাশিত হয় ২০১৪ এর একুশের বই মেলায়।

উল্লেখ্য, ফরিদ মাহামুদ ২০০৭ সালে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের আমলে নেতাকর্মীদের সংঘটিত করতে কাজ করেছেন । ওয়ান ইলেভেন সরকারের আমলে সংগঠনের চরম দুঃসময়ে নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ রেখে কৌশলে নানা কর্মসূচী পালন করেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার মুক্তির দাবীতে চট্টগ্রাম মহানগরীতে তিনি পোষ্টার লাগান। নেতাকর্মীরা বিপদে আপদে পাশে পেয়েছেন তাকে,তৃনমুলের কর্মীদের সাথে সবসময় যোগাযোগ রয়েছে তার।বর্তমানে নগর যুবলীগের যুগ্ন-আহবায়ক ফরিদ মাহমুদ বিগত সময়ে বিএনপি-জামাত জোটের যুদ্ধাপরাধের বিচার ও জাতীয় নির্বাচন ২০০৯ বানচাল করার ষড়যন্ত্র, হেফাজতের তান্ডব, জালাও পোড়াও পেট্রোল সন্ত্রাস ও মানুষ হত্যা রাজনীতির বিপরীতে তিনি দলের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে প্রতিরোধ করেছেন ।

জন্মদিনে আপনাকে আবারও জানাই অনেক শুভেচ্ছা।সিটি নিউজ পরিবার আপনার আনন্দের এই দিনে দীর্ঘায়ু কামনা করছি। দোয়া করি, যতদিন বেচে থাকবেন মানুষের ভালবাসা আপনার সাথে থাকবে।মানুষের হৃদয়ে জননেতা হয়েই থাকবেন।ইনশআল্লাহ।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.