নায়িকা পপিকেই বিয়ে চান হিরো আলম !

জনগণের প্যাদানি খেয়েও আমি সাকসেসফুল

0

বিনোদন ডেস্কঃ  আবারো আলোচনায় হিরো আলম। জাতীয় নির্বাচনের ডামা ঢোলের মধ্যে সবচেয়ে বেশী আলোচিত হালের আলোচিত নাম হিরো আলম। এবার জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রার্রী হয়ে আলোচনায় আসেন হিরো।

এবার  চিত্র নায়িকা পপিকে বিয়ে করার ইচ্ছা পোষণ করেছেন হিরো আলম। ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হিরো আলম বেশ খ্যাতি পেয়েছেন। সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানে অভিনেতা ও উপস্থাপক নাজিম জয়ের মুখোমুখি হয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

হিরো আলম বলেন, বাংলাদেশের অনেক নায়িকা বিয়ের বয়স পার হয়ে গেলেও বিয়ে করতেছেনা। আমাদের ধর্মে বলা আছে, একটা বিয়ে করা ফরজ। আমাকে যদি বলা হয় এসব নায়িকাদের কারও দায়িত্ব-ভার নিতে হবে, তাহলে আমি নিব। তবুও যদি তাদের বিয়ের সানাই বাজে।

কোন নায়িকাকে বিয়ে করতে চান- নাজিম জয়ের এমন এক প্রশ্নের জবাবে হিরো আলম বলেন, যেহেতু অনেকেই আমাকে বিয়ে করতে চায়, তাহলে বিয়ে তো করতেই হবে। বয়স অনেক হলেও নায়িকা পপি এখনও বিয়ে করতেছেনা। আমি প্রস্তাব দিলে রাজিও হবে হয়তো। রাজি হলে নায়িকা পপিকে বিয়ে করা যায়। তিনি আরও বলেন, কলকাতা থেকেও আমাকে বিয়ে করার জন্য অনেকেই অফার করতেছে, কিন্তু আমি না করে দিয়েছি।

একাদশ জাতীয় নির্বাচনের কথা উল্লেখ করে হিরো আলম বলেন, ইলেকশন করে জনগণের অনেক ভালোবাসা পেয়েছি। আমি মুগ্ধ, জনগণ আমাকে ভালোবাসে, আবার প্যাদানি (মার দেয়া) দেয়। জনগণের প্যাদানি খেয়েও আমি সাকসেসফুল (সফল)

মন্ত্রী হওয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী যাদেরকে এমপি-মন্ত্রী এমপি বানাচ্ছে, তারা সবাই ইয়াং জেনারেশন। আমার যে জনপ্রিয়তা রয়েছে, একজন ইয়াং হিসাবে প্রধানমন্ত্রী আমাকে অবশ্যই একটা মন্ত্রী বানাবে আশা করি। এমপি না হয়ে মন্ত্রী কিভাবে হবেন এমন প্রশ্নের জবাবে হিরো আলম বলেন, আমি এমপি না হলেও আমার জনপ্রিয়তা আছে, জনগণের ভালোবাসা আছে, প্রধানমন্ত্রী অবশ্যই এগুলো দেখে ভাববে যে একে মন্ত্রী বানালে জনগণের সেবা করবে, জনগণের উন্নয়ন হবে।

হিরো আলমকে নিয়েকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কম ট্রোল হয়নি। কিন্তু এবার তিনি নতুন করে বিতর্ক সৃষ্টি করলেন নায়িকা পপিকে বিয়ে করতে চেয়ে। তবে, নায়িকা পপির মতামত পাওয়া যায়নি এ বিষয়ে।

এ বিভাগের আরও খবর

Leave A Reply

Your email address will not be published.